রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৯:০৪ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

কসবায় ধারালো ছুরির আঘাতে গুরুতর আহত বিএনপি নেতা ইকলিল আজম, দ্রুত বিচার আইনে মামলা,আটক ১
মোহাম্মদ রাসেল মিয়া / ২৮৪ বার
আপডেট সময় রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২

মোহাম্মদ রাসেল মিয়া  :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন কসবা উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. ইকলিল আজম (৫৬)। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা কমফোর্ট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গত রোববার রাত সাড়ে ১০টায় কুটি চৌমুহনীতে অবস্থিত সেন্ট্রাল হাসপাতালে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ ছুরিসহ উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের ইউছুফ আলির ছেলে সাফায়েত আলী সৌরভ (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। তার মামার বাড়ি কসবা সদরে বগাবাড়ি গ্রামে। সে সুবাধে কসবা সুপার মার্কেটে জান্নাত মেডিকেল হল ঔষুধ ফামেসী রয়েছে।

এই ঘটনা কেন্দ্র করে ঘাতক সৌরাভ এর ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল করে বিভিন্ন মন্তব্য করেন কতপয় কিছু লোক এই বিষয়ে কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক কাজী মানিক বলেন- কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্যে এমন কী কর্মীও নন। কেউ অহেতু গোলা পানিতে মাছ শিকার করার চেষ্টা থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা গেল।আমরাও এই অপরাধীর বিচার দাবী করছি।

এ ঘটনায় সৌরভসহ চারজনকে আসামী করে কসবা থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা করেছেন আহত ইকলিল আজমের ছোট ভাই মো. আলী সোহান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার কুটি চৌমুহনী বাস টার্মিনাল এলাকায় অবস্থিত সেন্ট্রাল হাসপাতাল। ওই হাসপাতালের চেয়ারম্যান ইকলিল আজম। গত রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাফায়েত আলী সৌরভ মাথায় ব্যান্ডেজ করা অবস্থায় তার ছোট ভাইকে নিয়ে ওই হাসপাতালে যায়। এ সময় সৌরভ মালিক কোথায় ডাক্তার কোথায় বলে চিৎকার চেচামেচি করতে থাকে। এক পর্যায়ে সে ও তার সঙ্গে থাকা লোকজন চিকিৎসক ও নার্সদের মারধর করতে আসে। এসময় হাসপাতালের দ্বিতীয় তলা থেকে ইকলিল আজম নিচতলায় এসে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা মাত্র ছুরি বের করে তাকে উপুর্যপুরি ছুরিকাঘাত করতে থাকে।

এ সময় হাসপাতালে থাকা লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। পরে স্বাস্থ্যের অবনতি দেখা দিলে তাকে রাতেই ঢাকায় পাঠানো হয়। এ সময় স্থানীয় লোকজন ছুরিসহ সাফায়েত আলী সৌরভকে আটক করে। তার সঙ্গে থাকা অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সৌরভকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।

কসবা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর ভূইয়া বলেন, ইকলিল আজমকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় সাফায়েত আলী সৌরভ নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সৌরভসহ চারজনকে আসামী করে দ্রুত বিচার আইনে মামলা করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ