বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

ব্রিজ আছে, সংযোগ সড়কে ভোগান্তি!
রিপোর্টারের নাম / ৮৪ বার
আপডেট সময় বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২

মো. তাসলিম উদ্দিন সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া) ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের সরাইল- অরুয়াইল রাস্তার লোপাড়া রহিম মার্কেটের দক্ষিণ পশ্চিম কোনায় খালের মাঝখানে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে একটি ব্রিজ। ব্রিজের পশ্চিম পাশে সরু সড়ক থাকলে মাটি না তাকায় নির্মাণের কয়েক বছর পরও নির্মিত না হওয়ায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে শতাধিক মানুষকে। সরাইল উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের লোপাড়া এলাকায় ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে ২৪ লাখ ৪৮ হাজার ৭৬৬ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় ব্রিজটি। গত কয়েক বছর আগে ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষ হলেও হয়নি পশ্চিম পাশের সংযোগ সড়ক। যার জন্য মানুষ কষ্ট করে চলাচল করছে। লোপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বাবুল অভিযোগ করেন, ব্রিজটি নির্মাণ করলেও জনগণের চলাচল করতে কষ্ট আর শেষ হল না। ব্রিজের পুর্ব পাশে অরুয়াইল সড়কের সাথে আর পশ্চিম পাশের রাস্তা নির্মাণ না করাই প্রতিদিন নারী – পুরুষসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ কষ্ট করে চলাচল করে। অবিলম্বে ব্রিজের পাশে সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে মানুষের চলাচল উপযোগী করার আহ্বান জানান। আজ সকালে সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা বলেন, লোপাড়া গ্রামের শত শত মানুষসহ এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন। ব্রিজের কাছেই ফসলি জমি সংলগ্ন শত শত কৃষকের ফসল এ রাস্তা দিয়ে ঘরে তুলতে হয়। নামাজিরা মসজিদে নামাজ পড়তে আসতে কষ্ট হয়। ওই এলাকার স্থানীয় এক কৃষক বলেন, ব্রীজের সঙ্গে পশ্চিম পাশে রাস্তা না থাকায় জমি থেকে ধান কেটে বাড়ি নেওয়া যায় না।অতিরিক্ত শ্রমিক দিয়ে মাথায় করে বাড়িতে আনতে হয় ফসল।স্থানীয় কুতুবউদ্দিন বলেন, কিছুদিন আগে আমরা এলাকার মানুষ সবাই মিলে ওই রাস্তার মাটি দিয়েছি। ব্রিজ করার সময় এখানে মাটি ভরাট করে নাই। এখন দেখেন অবস্থা মানুষ আসা-যাওয়া করতে পারেনা। শিক্ষার্থী প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে। সংযোগ সড়কের অভাবে ছাত্রছাত্রীরা অনেক কষ্ট করে স্কুলে আসে। সবচেয়ে বেশি কষ্ট হয় মুসল্লিদের।
উপজেলার চুন্টা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির বলেন, জনগণের জন্য ব্রিজটি নির্মাণ করা হলেও সংযোগ সড়ক না থাকায় মানুষ সুফল পাচ্ছেন না।
সরাইল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) রাজকুমার শিল বলেন, মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। বরাদ্দ পেলে ব্রিজের পাশের রাস্তায় মাটি ভরাট করে দেওয়া হবে।
এ বিষয়ে সরাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আরিফুল হক মৃদুল বলেন, উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর ব্রিজটি নির্মাণ করে। তবে যাতে এলাকার মানুষের কষ্ট না হয়,দ্রুত ব্রিজের রাস্তাটি নির্মাণ করতে প্রয়ো জনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ